শুক্রবার, নভেম্বর ২২, ২০১৯

​ফারুক আবদ্দুলা ঘরেই আছেন !!!

কাশ্মীর ঘিরে বিরোধী ও সরকারের দিনভর তরজার শেষ নেই ।

ডিএমকের সাংসদ দয়ানিধি ও এনসিপির সাংসদ সুপ্রিয় সুলের জানতে চেয়েছেন ফারুক আবদ্দুলা কী গৃহবন্দি ? অভিযাগ তুলেছেন অমিত শাহের প্রতি । ফারুক আবদ্দুলা স্বয়ং জানালেন তাঁকে নাকি বন্দি করা হয়েছে । বিরোধীদের প্রশ্নের উত্তরে জানালেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ বললেন জম্মু-কাশ্মীরের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী ফারুক আবদুল্লাকে আটক বা গ্রেফতার কোনওটাই করা হয়নি।

কিন্তু বিরোধী সাংসদ সেই কথা মানতে নারাজ । বারবার জানতে চাওয়া হচ্ছে আবদুল্লাকে আটক বা গ্রেফতার করা হয়েছে কি না ! এই প্রশ্নে সংসদ যখন তোলপাড় হচ্ছে, কিছু সময় পরই প্রকাশ্যে আসতে দেখা যায় ফারুককে। তাঁকে গৃহবন্দি করে রাখার অভিযোগ তোলেন সরকারের বিরুদ্ধে। তিনি বলেন,

  • 'আমাকে বাড়ির বাইরে বেরোতে দেওয়া হয়নি। হাসপাতালেও যেতে দেওয়া হয়নি। পরে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর বয়ান শুনে জানতে পারলাম আমাকে হেফাজতে নেওয়া হয়নি। তখনই বাইরে এলাম।' এর পরই হুঁশিয়ারি দেন, যখন আমার রাজ্যকে জ্বালিয়ে দেওয়া হচ্ছে, আমার লোকেদের জেলে পোরা হচ্ছে, কেন আমি ঘরে বসে থাকব?'

ফারুক প্রসঙ্গে বিরোধীদের একের পর এক প্রশ্নবাণ যখন ধেয়ে আসছিল অমিতের দিকে, তখন তিনি এর উত্তরে বলেন, 'ফারুক আবদুল্লাকে আটক বা গ্রেফতার কোনওটাই করা হয়নি। তিনি বাড়িতেই আছেন। এবং স্ব-ইচ্ছাতেই সেখানে রয়েছেন।' অমিতের এই উত্তরে আশ্বস্ত হননি বিরোধী সাংসদরা। উল্টে এ প্রসঙ্গে অমিতকে আরও কোণঠাসা করার চেষ্টা করতে দেখা যায় তাঁদের। তখন অমিতকে বলতে শোনা যায়,

  • 'চতুর্থ বারের জন্য একই কথা বলছি। দশ বার পর্যন্ত বলার ধৈর্য আছে আমার। আবার বলছি, ফারুক আবদুল্লাকে গ্রেফতার বা আটক করা হয়নি। তিনি যদি অসুস্থ হন, চিকিত্সকরা তাঁকে হাসপাতালে নিয়ে যাবেন। হাউসের এ বিষয়ে উদ্বিগ্ন হওয়ার কোনও প্রয়োজন নেই।'

ন্যাশনাল কনফারেন্স নেতা ওমর আবদুল্লা, পিডিপি নেত্রী মেহবুববা মুফতিকে রবিবার রাতেই গৃহবন্দি করা হয়। শনিবার তাঁদের গ্রেফতার করা হয়। বিভিন্ন সূত্র মারফত্ খবর আসে, মুফতিকে তাঁর বাড়ি থেকে তুলে নিয়ে গিয়ে কাছাকাছি একটি সরকারি গেস্ট হাউসে রাখা হয় ।