শুক্রবার, নভেম্বর ২২, ২০১৯

সুপার ওভারে জিতে ক্রিকেটে বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন ইংল্যান্ড

ক্রিকেট বিশ্বকাপ জিতলো আয়োজক ইংল্যান্ড । শেষ পর্যন্ত নিউজিল্যান্ড বরাত ফেরে হেরে যায় । সুপার ওভারে জিতে বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন ইংল্যান্ডবেন স্টোকসের ব্যাটে বিশ্বজয়ের কাছে এসেও ম্যাচ টাই। গড়াল সুপার ওভারে। এই প্রথমবার বিশ্বকাপ ফাইনাল সুপার ওভারে নিষ্পত্তি হয়েছে ।

ম্যাঞ্চেস্টারে সেমি-ফাইনালের অ্যাকশন রি-প্লে যেন লর্ডসের ফাইনালে। মাত্র ২৪১ রানের পুঁজি নিয়ে বোল্ট, হেনরি, ফার্গুসন, নিশামরা বিশ্বকাপ জিতে নিলেন। অন্যদিকে কিউইদের সামনে আত্মসমর্পন রয়, বেয়ারস্টো, রুট, মর্গ্যানদের। বিশ্বকাপ ফাইনালে গ্রিন টপ উইকেট। মাঠ আর উইকেট যেন আলাদা করা যাচ্ছে না। এমন উইকেটে পেসাররা যে আগুন ঝড়াবেন তা বলাবাহুল্য। লিয়াম প্লাঙ্কেট, ক্রিস ওকস, মার্ক উড, জোফ্রা আর্চাররা কিউইদের কম রানে বেঁধে রেখে সেই ইঙ্গিতই দিয়েছিলেন। আর তখনই বোধ হয় আশা জেগেছিল বোল্টদের মনেও। আর হলও তাই। শেষ ওভারে টান টান উত্তেজনা। জয়ের জন্য ইংল্যান্ডের প্রয়োজন ১৫। বোল্টের বলে ছক্কা আর তার পরের বলে ২ রানের পাশাপাশি ওভার থ্রোতে আরও ৪ কান। শেষ বলে ২ রান দরকার ছিল। কিন্তু রান আউট হলেন উড। ২৪১ রানে অল আউট ইংল্যান্ড। স্কোর সমান সমান।

২৪২ রানের টার্গেট নিয়ে ব্যাট করতে নেমে শুরুতেই ট্রেন্ট বোল্টের প্রথম বলে জেসন রয়ের বিরুদ্ধে এলবিডব্লিউ-র আবেদন। আম্পায়ারস কলে বেঁচে যান। এরপর ঝড় তোলার চেষ্টা করেন রয়-বেয়ারস্টো জুটি। কিন্তু ১৭ রানে ম্যাচ হেনরির বলে আউট বলেন রয়।জো রুটকে ৭ রানে ফেরালেন কলিন ডি গ্র্যান্ডহোম।ফার্গুসনের বলে বোল্ড হয়ে ৩৬ রানে ফিরে যান বেয়ারস্টো। ৯ রানে নিশামের বলে দুরন্ত ক্যাচ ধরে ইয়ন মর্গ্যানকে ফেরালেন লকি ফার্গুসন। এরপর জোস বাটলার এবং বেন স্টোকস জুটি ইংল্যান্ডকে টানতে থাকে। শতরানের পার্টনারশিপে জয়ের গন্ধ পেতে শুরু করে ব্রিটিশরা। কিন্তু ৬০ বলে ৫৯ রান করে প্যাভিলিয়নে ফিরে গেলেন জোস বাটলার। লড়াই চালিয়ে যান বেন স্টোকস। ৮৪ রানে অপরাজিত থাকেন বেন স্টোকস।লর্ডসে মেগা ফাইনালে টস জিতে প্রথমে ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত নেন নিউ জিল্যান্ড অধিনায়ক কেন উইলিয়ামসন। হেনরি নিকলস ধীরে শুরু করলেও কিছুটা আক্রমনাত্মক ব্যাটিং শুরু করেন আর এক ওপেনার মার্টিন গাপটিল। কিন্তু বিশ্বকাপে অফ ফর্মে থাকা গাপটিলকে ১৯ রানে ফিরিয়ে কিউই শিবিরে প্রথম আঘাত হানেন ক্রিস ওকস। এরপর অবশ্য নিকোলস ও উইলিয়ামসন জুটি নিউ জিল্যান্ডকে টানতে থাকে। কিন্তু ৩০ রানে উইলিয়ামসনকে ফেরান লিয়াম প্লাঙ্কেট। নিকলসকেও ৫৫ রানে ফেরান সেই প্লাঙ্কেট। ১৫ রানে আউট রস টেলর। জিমি নিশাম করেন ১৯ রান।১৬ রান করেন কলিন ডি গ্র্যান্ডহোম। শেষ দিকে টম লাথাম করেন ৪৭ রান। শেষ পর্যন্ত নিউ জিল্যান্ড প্রথমে ব্যাটিং করে ৮ উইকেট হারিয়ে ২৪১ রান তোলে। ইংল্যান্ডের হয়ে লিয়াম প্লাঙ্কেট ও ক্রিস ওকস ৩টি করে উইকেট নেন।


তথ্যসূত্র dailyhunt o ann