বুধবার, ডিসেম্বর ২, ২০২০

আফিম


আফিম

অলিন্দ আর নিলয়ের মাঝখানে পুষেছি

চতুষ্কোণ একখণ্ড কাঁচ

নিষেধকে খুন করে যেটা ঘটে যায়

তাকে তুমি ভুল বলে দেগে দিতে পারো

যদিও মেঘলার ছুঁড়ে দেওয়া ছাতার ছায়ায়

উপহার শিরায় শিরায় ঢেলেছে আফিমের ঘোর

যেমনটি চেয়েছো,আমি সোনার টুকরো হয়ে

গিয়ে বসি প্রদীপের শিখায়,যেখানে এক স্বর্ণকার ব্লো পাইপে ফুঁ দিয়ে নীল আগুনে

আমাকে স্নান করায়

ফুল ফুল নক্সা আঁকা যে আসনটা তুমি দিয়েছিলে, ঠাকুর ঘরে পেতে বসতে

খুব ছোট ছোট লাল পিঁপড়েরা তাতে

সহবাস করে

এলোমেলো বাতাসে ওড়ে

নাম লেখা অনেক রুমাল

চতুষ্কোণ সেই কাঁচের দুপাশে

ক্লান্ত অথচ নিরলস আমি

গন্ধ আর শব্দের বহুবচনে

জহুরির মতো ভালো মন্দ খুঁজি

----