মঙ্গলবার, নভেম্বর ১৯, ২০১৯

আন্তর্জাতিক মঞ্চে ভারতের কূটনৈতিক জয়, আজাহার মাসুদ আন্তর্জাতিক সন্ত্রাসী

আন্তর্জাতিক মঞ্চে ভারতের কূটনৈতিক জয় , আজাহার মাসুদ আন্তর্জাতিক সন্ত্রাসী

-- অন্যদেশ ডেক্স ,,১-লা মেবুধবার

আন্তর্জাতিক চাপে চিন ও পাকিস্তানের সুর নরম হতেই দুই দশক পর মাসুদ আজহারকে আন্তর্জাতিক সন্ত্রাসবাদী ঘোষণা করল রাষ্ট্রসঙ্ঘ।মাসুদের জঙ্গি সংগঠন জইশ-ই-মহম্মদকেও নিষিদ্ধ ঘোষণা হল । অন্যদিকে, রাষ্ট্রসঙ্ঘ মাসুদ আজহারের বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞা জারি হলে তাকে আটক করা হবে বলে চাপে পড়ে আশ্বাস দিয়েছে পাকিস্তানও। এই ঘোষণা ভোটের মধ্যেই প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী সরকারের বড় কূটনৈতিক জয়বলেই রাজনৈতিক মহলের দাবি।মাসুদ আজহারকে আন্তর্জাতিক সন্ত্রাসবাদী ঘোষণার সব কৃতিত্ব ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকেই দিল বিজেপি। অরুণ জেটলি থেকে পীয়ূষ গয়াল, নীতীন গড়করি থেকে প্রকাশ জাভড়েকর, বিজেপির সব কেন্দ্রীয় মন্ত্রী ও নেতাদের মুখে একটাই কথা, দেশের শাসনভার যে সুরক্ষিত ব্যক্তির হাতেই আছে, তা আরো একবার প্রমাণিত।ভোটের মুখেই আন্তর্জাতিক স্তরে বড়সড় কূটনৈতিক সাফল্য পেল প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী সরকার।শীঘ্রই জইশ-ই-মহম্মদের মাথা মাসুদের সব সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত করা হবে এবং তার গতিবিধি নিয়ন্ত্রণ করা হবে বলে রাষ্ট্রসঙ্ঘের তরফে জানানো হয়েছে।বুধবার রাষ্ট্রসংঘের নিরাপত্তা পরিষদের সন্ত্রাসবাদ বিরোধী নীতি নির্ধারণ সংক্রান্ত ১২৬৭ কমিটির বৈঠকে পুলওয়ামা হামলার মাথা মাসুদ আজহারকে আন্তর্জাতিক সন্ত্রাসবাদী ঘোষণা করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। ভারতের রাষ্ট্রসংঘের দূত টুইট করে এই খবর জানান। লেখেন, ছোট, বড় সবাই হাত মিলিয়েছেন। সবার সমর্থনের জন্য ধন্যবাদ। এই ঘোষণার পর জইশ-ই-মহম্মদের মাথা মাসুদ আজহারকে গৃহবন্দী অবস্থা থেকে গোপন আস্তানায় সরিয়ে নিয়ে যাওয়া হয়েছে বলে সূত্রের খবর। যদিও, রাষ্ট্রসঙ্ঘ মাসুদকে আন্তর্জাতিক সন্ত্রাসবাদী ঘোষণা করলে পাকিস্তান তাকে আটক করবে বলেই ইসলামাবাদের তরফে আশ্বাস দেওয়া হয়েছে।বিজেপি সভাপতি অমিত শাহের কথায়, কেন ভারতে নরেন্দ্র মোদীর মতো শক্তিশালী নেতার প্রয়োজন, তা আরো একবার প্রমাণিত হল। প্রধানমন্ত্রীর কূটনৈতিক চেষ্টা এবং স্বদিচ্ছার জন্যই এই সাফল্য এসেছে বলেও দাবি করেছেন অমিত শাহ। সন্ত্রাসবাদ নির্মূল করতে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী কতটা উদ্যোগী, মাসুদকে আন্তর্জাতিক সন্ত্রাসবাদী হিসেবে ঘোষণা তা চোখে আঙুল দিয়ে দেখিয়ে দিয়েছে বলেও মনে করেন বিজেপি সভাপতি সভাপতি। ঘটনাকে ঐতিহাসিক সাফল্য হিসেবেই দেখছে গেরুয়া শিবির।

সংবাদ সূত্র ; ANI